ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে চাচ্ছেন.? তবে এই পোষ্টটি আপনার জন্য।

হ্যালো বন্ধুরা রা কেমন আছেন সবাই আশা করি ভালো আছেন। বর্তমান যুগে সবাই চাই অনলাইন (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকাম করতে। কিন্তু এটা মটেও সহজ কাজ নয়। আপনিও যদি চান অনলাইন (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকাম করতে তবে পোষ্ট টি আপনার জন্য।

 আশা করি শেষ পর্যন্ত পড়বেন।  আপনি হয়ত অনেক বিজ্ঞাপন দেখতে পাবেন বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলতে। ১০ মিনিট কাজ করে ৩০০/৫০০ আবার অনেক সময় তার হাজার টাকার লোভ দেখায। আপনি বিশ্বাস করেন বা না করেন –এগুলা মটেও সত্য নয়। তারা শুধু আপনাকে লোভ দেখিয়ে তারা তাদের কাজ অর্থাৎ ভিজিটর বা ইউটিউব তে তাদের ভিউ বারিয়ে নিবে ,

 তাতে আপনার এক পয়সার লাভ ও হবে না। আপনি মানেন বা না মানেন তবুও এটাই সত্য যে- অনলাইন (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকামের শর্টকাট কন রাস্তা নেই।

  অনলাইন (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকাম করতে হলে অবশই আপনাকে প্রফেশনালি কাজ শিখেই ইনকাম করতে হবে। 

কি কাজ শিখবেনঃ

কি কাজ শিখবেন এটা আপনাকেই ঠিক করতে হবে।

 কেননা আপনি কি কাজ ভালো পারবেন বা আপনার কন কাজের উপর ভালোবাসা বেশী তা কেবল আপনিই জানেন। কাজের প্রতি ভালোবাসা বললাম এ জন্য- যে আপনি যে কাজ-ই করেন না কেন সে কাজের প্রতি আপনার যদি ভালবাসা না থাকে তবে আপনি তাতে সফল হতে পারবেন না । 

আর পারলেও আপনি সেই কাজ দীর্ঘ দিন করতে পারবেন না । বিরক্তবোধ হবে। আর আপনি তো অল্প কিছু সময়ের জন্য কাজ শিখবেন না। তাই আমি বলবো আপনার যে কাজে আগ্রহ বেশি বা যে কাজ করতে বিরক্তবোধ হয় না সেই কাজই শিখা শুরু করুন। কারো কথা না শুনে।

 কেননা আপনি আমার বা অনন্য কারো কথা শুনে একটি কাজ (ডিজিটাল মার্কেটিং) শুরু করলেন, কিন্তু দেখা গেল কিছু দিন পরে আপনার আর এই কাজ (ডিজিটাল মার্কেটিং) টি ভালো লাগলো না। তখন আপনি আবার নতুন করে শুরু করতে পারবেন না, পারলেও সেটা অনেক কষ্টকর হবে। তবুও নিচে দেওয়া LIST থেকে যে কন একটি কাজ শিখে শুরু করতে পারেন। 

 » web designer.

 » article writing

 » digital marketing.

 » graphic design.

 » SEO.

এই কাজ গুলার এখন প্রচুর চাহিদা রয়েছে মার্কেটপ্লেস এ। আর ভবিষ্যতেও থাকবে আশা করি।

ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে চাচ্ছেন.? তবে এই পোষ্টটি আপনার জন্য।

খুব কম সময়ে কন কাজ শিখে আয করা যাই।

আমি পোষ্ট এর শুরুতেই বলেছি অনলাইনে (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকামের শর্টকাট কন রাস্তা নেই। যদিও কিছু কাজ আছে যা আপনি খুব কম সময়ে শিখে কাজ করতে পারবেন।

 তবে তা নাম মাত্র ইনকাম হবে। যা দিয়ে আপনার ফোনের এম,বি খরচ টুকু পাবেন।  তবে আমি আপনাকে বলবো আপনি খুব কম সময়ে ইনকাম করতে চাইলে আপনি ডিজিটাল মার্কেটএর কাজ শিখুন।  কেননা বর্তমান ডিজিটাল যুগে সবকিছুই এখন অনলাইনে হয়।

 সেই সঙ্গে কিনা-কাটাও। তাই ডিজিটাল মার্কেটএর চাহদা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

মোবাইল দিয়ে কি অনলাইন (ফ্রিল্যান্সিং) থেকে ইনকাম করা সম্ভব.?

হ্যাঁ সম্ভব, এটা নির্ভর করে আপনার উপর। আপনি কতটা আগ্রহি তার উপর , কথায আসে না ইচ্ছা থাকলে সবি সম্ভব। আপনি যদি হাতের এন্ড্রয়েড ফোন থেকে ইনকাম করার ইচ্ছা থাকে তবে আপনি ARTICLE WRITING এর কাজ করতে পারেন।

 কিভাবে ARTICLE WRITING করে ইনকাম করবেন তা জানতে এই পোষ্ট টি পড়ুন।

কাজ শিখে কথায কাজ করবেন।

অনেক গুলা অনলাইন মার্কেটপ্লেস আছে যেখানে আপনি আপনার দক্ষতা সেল করে ইনকাম করতে পারবেন।

শীর্ষে থাকা ৫ টি মার্কেটপ্লেস এর নামঃ

 » Fiverr.

» Frencher.com.

» Peopleperhour.

» Anytask.

» Guru.

Fiverr কি এবং কি ভাবে কাজ করতে হয় তা জানতে এই পোষ্ট টি পড়ুন।

মার্কেটপ্লেস কাজ করতে কতটুকও ইংলিশ জানতে হয়।

ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে চাচ্ছেন.? তবে এই পোষ্টটি

দেখুন যেহুতু ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস অধিকাংশ কাজ বিদেশি দের হয়ে থাকে। আর তারা যেহুতু আমারদের বাংলা ভাষা বুঝে না, তাই ইংলিশ এর প্রয়জন আছে । তবে আপনাকে খুব বেশি বা ইংলিশ এ এক্সপার্ট হতে হবে বিষয় টা এমন না। আপনি বায়ারের কথা বুঝতে পারলে এবং বায়ারকে আপনার কথা বুঝাতে পারলে সেটাই এনাফ। 

কোথায় থেকে কাজ শিখবোঃ

আমি মনে করি যে কন কাজ শিখার জন্য Youtube আর Google ই যথেষ্ট । কেননা আপনি চাইলে সবি সিখতে পারবেন Youtube AND Google থেকে। দেশে অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যারা ফ্রিল্যান্সিং (অনলাইনে ইনকাজ রিলেটেড) কাজ শিখিয়ে থাকে, আপনি যদি চান সেখান থেকে শিখতে পারেন। তবে আমার মতে কন প্রতিষ্ঠান থেকে নয়।

 কাজ শিখুন Youtube AND Google থেকে, আপনি একটু খুজলেই আনেক Youtube চ্যানেল পাবেন যারা ফ্রি তে নিজেদের সব টুকু দিয়ে চেষ্টা করে যাচ্ছে মানুষ কে ফ্রিল্যান্সিং শিখানোর জন্য।

 আজ এপর্যন্তই, কমেন্ট এ আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না, 

পোষ্টটি শেয়ার করতে পারেন বন্ধুদের সঙ্গে। মূল্যবান সময় দিয়ে পোষ্টটি পড়ার জন্য,

 ধন্যবাদ।

Leave a Comment

%d bloggers like this: