কীভাবে হ্যাং হওয়া কম্পিউটার ঠিক করবেন?

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত কম্পিউটারগুলোর ক্ষেত্রে হঠাৎ হ্যাং হয়ে যাওয়া নতুন কোন ব্যাপার নয়। তাই আপনার উইন্ডোজ কম্পিউটার হঠাৎ হ্যাং হয়ে গেলে কি করা উচিত, সেটা জেনে রাখা একান্ত জরুরী।

চলুন জেনে নেয়া যাক, কিভাবে হ্যাং হয়ে যাওয়া উইন্ডোজ কম্পিউটারে প্রাণ ফিরিয়ে আনবেন।

ঠিক কি কারনে কম্পিউটার হ্যাং হলো, সেটার উপর ভিত্তি করে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে। বেশিরভাগ সময় ব্যাকগ্রাউন্ডে কোনো প্রসেস চলার কারণে কিছু সময়ের জন্য কম্পিউটার হ্যাং হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে কিছু সময়ের মধ্যেই কম্পিউটার আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসে। ফুল স্ক্রিন অ্যাপস যেমন গেইম চলাকালে যদি হ্যাং হয়ে যায়, তবে Alt + F4 বাটন চাপলে চলমান উইন্ডো টি বন্ধ হয়ে যায়।

কম্পিউটার ঠিকমতো কাজ করছে কিনা, তা নিশ্চিত করতে Ctrl + Alt + Delete বাটন চাপুন। উল্লেখিত বাটনগুলো চাপার পর একটি স্ক্রিন আসবে, যেখান থেকে টাস্ক ম্যানেজার (Task Manager) এ প্রবেশ করা যাবে।

 

এছাড়া চাইলে কম্পিউটার log out অথবা restart ও করা যেতে পারে। তবে এই প্রসেসেও যদি কাজ না করে, সেক্ষেত্রে reboot ছাড়া সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। আর যদি Task Manager এ প্রবেশ করা যায়, তবে সেখান থেকেই কম্পিউটার টিকে হ্যাং হওয়া থেকে পুনরায় চালু করা যাবে।

Fiverr এ যেভাবে একাউন্ট খুলবেন, এবং প্রোফাইল সাজাবেন।

Ctrl + Shift+ Esc বাটন চেপেও টাস্ক ম্যানেজারে প্রবেশ করা যায়। টাস্ক ম্যানেজার এ প্রবেশ করে, Process ট্যাব(tab) এ ক্লিক করুন। এখানে কলাম এর Header এ CPU optionটি সিলেক্ট করে যেই প্রসেসটি সবচেয়ে বেশি CPU পাওয়ার ব্যবহার করছে, স্ক্রিনে সেটি উপরে ভেসে উঠবে।

 

প্রসেসটি সিলেক্ট করার পর End Task অপশনটিতে ক্লিক করলে এপ্লিকেশনটি বন্ধ হয়ে যাবে। তবে যদি ওই অ্যাপ্লিকেশনে কোনো কাজ চলে থাকে, তবে সেটি সেইভ থাকবে না। অনেকসময় হ্যাং হওয়ার কারণে টাস্কবার ও স্টার্ট মেন্যুতে প্রবেশ করা যায়না। সেক্ষেত্রে উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার (Windows Explorer) রিস্টার্ট করার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে।

 

উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার রিস্টার্ট করতে চাইলে, টাস্ক ম্যানেজারের প্রসেস ট্যাব থেকে উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার সিলেক্ট করে Restart বাটন চাপতে হবে। এছাড়াও Ctrl + Alt + Delete বাটনে ক্লিক পর যে স্ক্রিনটি আসে, সেখান থেকে Restart অপশন ব্যবহার করে কম্পিউটার পুনরায় চালু করা যাবে। আবার উইন্ডোজ বাটন + L চেপে আপনি কম্পিউটার লক স্ক্রীনে ফেরত যাওয়া যেতে পারে, যেখান থেকে আপনি কম্পিউটার রিস্টার্ট করা যায়।

 

তবে Ctrl + Alt + Delete অপশনটিতে কাজ না করলে, এই প্রসেসটিও কাজ নাও করতে পারে। উপরে উল্লেখিত কোনো উপায়ই যদি কাজ না হয়, সেক্ষেত্রে Windows Key + Ctrl + Shift + b বাটন চাপতে পারেন। তাতে কম্পিউটারের গ্রাফিক্স ড্রাইভারকে রিস্টার্ট হবে।

Payoneer একাউন্ট খুলার নিয়ম।

যদি গ্রাফিক্স ড্রাইভারসংক্রান্ত সমস্যা হয়ে থাকে, তবে এভাবে কম্পিউটার ঠিক করা যায়। এরপরও যদি আপনার হ্যাং হওয়া কম্পিউটার চালু না হয়, তবে সেক্ষেত্রে হার্ড shut down করে কম্পিউটার ঠিক করার চেষ্টা করা যেতে পারে কম্পিউটারের পাওয়ার বাটন ১০ সেকেন্ড চেপে ধরে রাখলে বন্ধ হয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর স্বাভাবিকভাবে পাওয়ার বাটন চেপে কম্পিউটার চালু করতে হবে।

 কম্পিউটার যদি ব্লু স্ক্রীনে এসে আটকে থাকে, সেক্ষেত্রে এই পদ্ধতিতে হ্যাং হওয়া কম্পিউটার ঠিক করা যেতে পারে। যদিও এই পদ্ধতিটি ব্যবহার না করাই উত্তম। এতে আপনার ডেটা লস হতে পারে। নেহাতই জরুরি না হলে এই পদ্ধতি অনুসরণ করা উচিত না।

 

এই ধরনের সমস্যা হঠাৎ হয়, সেক্ষেত্রে চিন্তার কোনো কারণ নেই। তবে কম্পিউটার যদি সবসময়ই হ্যাং হতে থাকে, তবে সফটওয়্যার কিংবা হার্ডওয়্যারজনিত কোনো সমস্যা আছে বলে ধরে নেয়া যেতে পারে।

 

নতুন কোন সফটওয়্যার ইন্সটল বা কম্পিউটারটি আপডেট করার ফলে যদি কোন সমস্যা দেখা দেয়, তাহলে System Restore ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে। Control Panel > System and Security > System > System Protection > System Restore এ অপশনটি পাওয়া যাবে।

 

সফটওয়্যারসংক্রান্ত সমস্যা হলে উইন্ডোজ পুনরায় ইন্সটল করা একটি ভালো সমাধান। উইন্ডোজ ১০ এ একটি Reset অপশন আছে, যেটি আসলে উইন্ডোজ রি-ইন্সটল করে। ম্যালওয়্যারসংক্রান্ত কারণে কম্পিউটার হ্যাং হয়েছে কিনা, তা যাচাই করতে এন্টি-ম্যালওয়্যার স্ক্যান করে দেখা যেতে পারে। উইন্ডোজ ১০ এ বিল্ট-ইন উইন্ডোজ ডিফেন্ডার এন্টিভাইরাস থাকে।

 

  এটা ছাড়াও অন্য কোনো এন্টি-ম্যালওয়্যার টুল ব্যবহার করে এই কাজটি করা যায়। সমস্যা যদি হার্ডওয়্যারজনিত হয়, তাহলে সেটি খুঁজে পাওয়া খুব জটিল একটা ব্যাপার। ওভারহিটিং এর কারনে এই সমস্যা হতে পারে। আবার গেইম খেলার সময় যদি প্রায়শই পিসি হ্যাং করর থাকে, তবে সেটি গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট (জিপিউ) কিংবা মূল প্রসেসর বা র্যামের সমস্যা হতে পারে।

ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে চাচ্ছেন.? তবে এই পোষ্টটি আপনার জন্য।

 যদি উইন্ডোজ ইন্সটল করার সময় কম্পিউটার হ্যাং হয়ে থাকলে, সেটা হার্ডওয়্যারজনিত ত্রুটি হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। সেক্ষেত্রে কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার চেক করে প্রয়োজনমতো পাল্টে নিতে পারেন।

 পোষ্টটি ভালো লাগলে বা আরো কিছু জানার থাকলে কমেন্ট বলতে পারেন। অথবা আমাদের জন্য কন পরামর্শ থাকলে কমেন্ট জানাতে ভুলবেন না।
আমাদের মেইল করুন এই ঠিকানায় Admin@tech24update.com
আপনার বন্ধু দের সঙ্গে পোষ্টি শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Leave a Comment

%d bloggers like this: